বুধবার, ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং। ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ। সন্ধ্যা ৬:১০








প্রচ্ছদ » শিল্প সাহিত্য

বাংলাদেশ বইমেলা কলকাতার আকর্ষণ ‘কবিতায় এপার ওপার’

বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে দুই বাংলার কবিদের কাব্য সংকলন ‘কবিতায় এপার ওপার’। গত ৮ ধরে বছর নিয়মিত আয়োজিত হয়ে আসছে বাংলাদেশ বইমেলা কলকাতা।  তাই প্রতি বছরের মতো এবছরেরও অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে এই বই মেলা। আর এই মেলায় গত ৪ বছর ধরে প্রকাশিত হয়ে আসছে দুই বাংলার কবিদের কাব্য সংকলন ‘কবিতায় এপার ওপার’। তারই ধারাবাহিকতায় কলকাতার মোহরকুঞ্জে আয়োজিত ৯ম ‘বাংলাদেশ বইমেলা ২০১৯’ এ প্রকাশিত হচ্ছে ‘কবিতায় এপার ওপার’ – ৫। ‘কবিতায় এপার ওপার’ কাব্য সংকলনটি বাংলাদেশ বইমেলা কলকাতার মূল আকর্ষণ হিসেবে কাজ করছে। উল্লেখ্য এই মেলা শুরু হবে আগামী পহেলা নভেম্বর আর শেষ হবে ১০ ই নভেম্বর।

দুই বাংলার উদীয়মান কবিদের এক সুতোয় গাঁথতেই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল বইটি প্রকাশের। বইটির সম্পাদক সাদেক সরওয়ারের হাত ধরে দেশের সীমা ছাড়িয়ে কলকাতা বইমেলাতেও বইটি কুড়িয়েছিল সমালোচকদের প্রশংসা। উৎসাহ জুগিয়েছিল অসংখ্য নবীন লেখকদের।

বইটি সম্পর্কে সম্পাদক সাদেক সরওয়ার বলেন, আমার প্রয়াস শুধু ছিল দুই বাংলার তরুণ কবিদের একটি কাব্য কাননে একত্রিত করা, যেখানে তারা কবিতার শব্দগুলোকে ফুলের মতো ফুটিয়ে তুলতে পারবে স্বাচ্ছন্দ্যে! পঞ্চম সংকলনটি প্রকাশিত হওয়ার পর মনে হচ্ছে, কিছুটা হলেও হয়তো তা পেরেছি।

আমাদের সংকলনে এমন কিছু লেখক ছিলেন, যাদের লেখা প্রথমবার বইয়ের মলাটে পাঠকের কাছে গেছে এবং এরপর তাদের স্বপ্ন দেখার পরিসর, আত্মবিশ্বাস এতটাই উন্নত হয়েছে যে তাদের অনেকেই এখন লেখালিখির পাশাপাশি শুরু করেছেন লেখা সম্পাদনার কাজ। প্রকাশ করছেন নান্দনিক সব সাহিত্য পত্রিকা। এটি আমাদের জন্য সত্যি আনন্দের সংবাদ বটে।

‘কবিতায় এপার ওপার-৫’ বইটিতে রয়েছে দুই বাংলা মিলিয়ে ৫৪ জন কবির ১০৫টি কবিতা! নতুনদের অনুপ্রেরণা প্রদানের জন্য সংকলনটিতে লেখা দিয়েছেন বর্তমান সময়ের পরিচিত কবিগণ। বাংলাদেশ থেকে রয়েছেন ওয়াহিদ ইবনে রেজা, ইমরান মাহফুজ, অনিন্দ্য টিটো এবং পশ্চিমবঙ্গ থেকে অর্পিতা সরকার, রেজমান, অনুব্রতা গুপ্তসহ অনেকেই। এছাড়াও তরুণদের মধ্যে রয়েছেন তনময় শাহরিয়ার, আকেল হায়দার, অর্ঘ্যদীপ আচার্য্য, অরুণাশীষ সোম, অর্কোপল দত্ত, ঋত্মিক বারুই, সাকিব রহমান, সোনিয়া ইতি, সোনালী নাগ, প্রসেনজিৎ মজুমদার, জামসেদ নাজিম, মিঠা মামুন, রেদোয়ান মাসুদ, অভিষেক দাস, অরিজিৎ বাগচী, সুদেষ্ণা ব্যানার্জী, শুক্লা সাহা তিথি, মোনালিসা নন্দী, সব্যসাচী চ্যাটার্জী, সহেলী রায়, শুভঙ্কর দেবসহ প্রমুখ নবীন কবি যাঁদের কাব্যের সুললিত ভঙ্গিমায় সংকলনটি হয়ে উঠেছে অনন্য সাধারণ।

এ সময়ের সার্থক চলচ্চিত্র নির্মাতা, কবি হাসিবুর রেজা কল্লোল বইটির ভূমিকায় বলেছেন- ‘কবিতায় এপার ওপারের মতো বই নিয়মিত প্রকাশ খুবই সময়োপযোগী একটি উদ্যোগ বলেই আমি বোধ করি। যেখানে বাংলা ভাষা- সংস্কৃতি- চলচ্চিত্রই আজ হুমকির মুখে। অন্য সংস্কৃতির দাপট এবং আগ্রাসনটাই এখানে মুখ্য ভূমিকা রেখে চলেছে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম আর ক্ষুদে বার্তায় ব্যবহৃত ভাষা দেখলেই সেটা বোঝা যায়। অন্য দিকে ওপার বাংলায় যারা দেশভাগের সময়ে পরবাসী হয়েছেন তাদের অনেকেই এখন গত হয়েছেন- তাদের সন্তানরা বাংলাকে আঁকড়ে রাখলেও বর্তমান প্রজন্ম, অর্থাৎ তাদের তৃতীয় প্রজন্ম বাংলাটাকে সেকেলে ভাষা এবং একে ত্যাগ করা উচিত এটা মনে করে- বেশ কয়েকজনের সাথে কথা বলে আমার উপলব্ধি হয়েছে।

বইয়ের দোকানে দেখা যায়, অন্য বইয়ের তুলনায় কবিতার বই খুব একটা বিক্রি হয় না। কবিতা ছাপতে প্রকাশক অথবা সম্পাদকদের খুব বেশি আগ্রহ আছে- এমনটাও আমার মনে হয়নি। এইসব দিক বিচারে সাদেক সরওয়ারের এই উদ্যোগ আমার কাছে সাহসের চাইতে বেশি মনে হয়েছে স্পর্ধার!’

অপর দিকে দুই বাংলায় জনপ্রিয় কবি রুদ্র গোস্বামী বইটির মুখবন্ধে বলেছেন- যে সব ভালো কথারা সঙ্ঘবদ্ধ হয়ে মানুষের ভালো বোধকে, শুভ চেতনাকে উস্কে দিতে পারে, সেই সব ভালো কথাকেই আমি কবিতা মনে করি। আমি নবীন প্রবীণে বিশ্বাস করি না। কেন না কবি কখনো নতুন অথবা পুরনো হতে পারেন না। ‘কবি’ আসলে একটি আশ্চর্য সুন্দর বোধযুক্ত পোশাক। ‘কবি’ পোশাকটি থাকে মানুষের মনে। তাই আমরা পোশাকটি দেখতে পাই না। যা দেখা যায় না তার নতুন পুরনো বলে কিছু নেই। মন কখনো নবীন অথবা প্রবীণ হতে পারে না। কবিও নবীন অথবা প্রবীণ নন।

সংকলনটির কবিতায় প্রকাশ পেয়েছে প্রচলিত অনিয়মের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ, কারও প্রকাশ পেয়েছে প্রেম। কারও কারও লেখার মূলভাব হিসেবে উঠে এসেছে দিন বদলের চেতনা। সব মিলিয়ে এই কাব্যসংকলনটি পড়ে একইসাথে বিভিন্ন অনুভূতির মাঝে একাত্ম হয়ে যেতে পারবেন পাঠক।

কলকাতার মোহরকুঞ্জে বাংলাদেশ বইমেলার প্রথম দিন থেকেই বইটি পাওয়া যাবে বাংলাদেশের স্বনামধন্য প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান অনিন্দ্য প্রকাশের স্টলে। বইটির প্রচ্ছদ করেছেন পল্লবী নন্দন, কবিতায় এপার ওপার-৫’ বইটির মোড়ক মূল্য রাখা হয়েছে মাত্র ২৫০/-। মেলা উপলক্ষে ২৫% ছাড়ের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

এছাড়াও বাংলাদেশের বন্ধুরা ঘরে বসে বইটি সংগ্রহ করতে পারবেন রকমারি অনলাইন থেকে এবং কলকাতার বন্ধুরা বইচই.কম থেকে।

Share Button
error: Content is protected !!