সোমবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং। ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। রাত ১০:১০








প্রচ্ছদ » বিশ্ব সংবাদ

খাশোগির পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে যা বললেন সৌদি যুবরাজ ও বাদশাহ!

গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরের সৌদি কনস্যুলেট ভবনে ব্যক্তিগত কাগজপত্র আনার প্রয়োজনে ঢোকার পর থেকেই নিখোঁজ ছিলেন সৌদির খ্যাতনামা সাংবাদিক জামাল খাশোগি।

সৌদির বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান তুরস্কের ইস্তাম্বুলে কনস্যুলেটে নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগির পরিবারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

ডেইলি মেইল এ খবর জানিয়েছে। তারা খাশোগির ছেলে সালাহকে সান্ত্বনা জানিয়েছেন। খবরে বলা হয়, রিয়াদে ইমামা প্রাসাদে খাশোগির ছেলে সালাহ ও তার ভাই সাহেলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন সৌদি বাদশাহ সালমান ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান ।

এ সময় বাদশাহ ও যুবরাজ তাদের সান্ত্বনা দেন। এর আগে সোমবার জামাল খাসোগির ছেলেকে ফোন করে কথা বলেছেন যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান। এ সময় নিহত খাশোগির ছেলে সালাহকে সান্ত্বনা দিয়েছেন তিনি।

সাক্ষাতের সময় বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দিকে অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে থাকেন খাশোগির সালাহ বিন জামাল খাশোগি। এ সময় তার চোখে-মুখে তীব্র কষ্টের ছাপ ফুটে ওঠে।

তিনি যেন অনেক না বলা কথা বলতে গিয়েও বলতে পারেননি। যুবরাজের সঙ্গে হ্যান্ডশেক করার সময়ও তিনি ছিলেন নিষ্প্রভ।সাক্ষাতের সময় সালাহর শারীরিক অঙ্গভঙ্গি বলছে তিনি যেন এ সাক্ষাতের জন্য মোটেও প্রস্তুত ছিলেন না।

তার শারীরিক অঙ্গভঙ্গিতে তীব্র মানসিক পীড়া ও অন্তর্নিহিত ক্ষোভ প্রকাশ পেয়েছে-অনেকটা মনে কষ্ট নিয়ে অনিচ্ছাকৃতভাবে কোনো কিছু করলে যা হয়। এমনকি হ্যান্ডশেক করার সময় সচরাচর যে আন্তরিকতা ফুটে ওঠে তা তার মধ্যে ছিল না।

অনেকটা গা-ছাড়াভাবে হ্যান্ডশেক করেছেন তিনি। বিশেষজ্ঞদের মতে, সাক্ষাতে সময় খাশোগির পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাতে মাথা কিছুটা নিচু রাখেন যুবরাজ সালমান। তিনি উন্মুক্তভাবে হ্যান্ডশেক করেন এবং সেটা ছিল ভদ্রোচিত।

তবে হ্যান্ডশেকের সময় পেশীতে সচরাচর যে ছন্দ ঘটে, সেটা তার মধ্যে ছিল না। এটার কারণও ব্যাখ্যা দিয়েছেন শারীরিক ভাষা বিশেষজ্ঞরা।

তাদের মতে, হ্যান্ডশেকে মানসিকভাবে ভেঙে পড়ার কারণে সালাহ যথেষ্ট আন্তরিকতা দেখাতে পারেননি। তার মধ্যে সে মনোভাবও ছিল না। আর এই কারণেই হয়তো যুবরাজ নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি।

 

 

Share Button

error: Content is protected !!