সোমবার, ১৯শে নভেম্বর, ২০১৮ ইং। ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। রাত ১০:০৯








প্রচ্ছদ » আইন ও আদালত

মাত্র পাওয়াঃ ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন শুনানি শেষে যে নির্দেশ দিল আদালত

গত কয়েকদিন ধরে অলোচনায় ঘটনাটি ।ঘটনাটি ঘটেছিল কয়েকদিন আগে এক টিভি চ্যানেলের টক শোতে। সেখানে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে চরিত্রহীন বলে উল্লেখ করেন আর তখন থেকেই শুরু হয় সব বিপত্তি। এই ব্যপারে দায়ের করা হয়েছে মামলা।দুটি মামলায় মইনুল হাইকোর্ট থেকে জামিন নিলেও রংপুরে দায়ের করা একটি মামলায় তাকে রাতে আ স ম আব্দুর রবের উত্তরার বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মানহানির মামলায় গ্রেফতার সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের জামিন না মঞ্জুর করেছে আদালত।মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম কায়সার হক জামিন না মঞ্জুর করে মইনুলকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।রংপুরে দায়ের করা এক মামলায় সোমবার গ্রেফতার হন মইনুল হোসেন। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতে তোলে ডিবি পুলিশ।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

প্রসঙ্গত, এদিকে গত ১৬ অক্টোবর রাতে একাত্তর টেলিভিশনের নিয়মিত আয়োজন একাত্তর জার্নাল-এ রাজনৈতিক সংবাদের বিশ্লেষণ চলছিল। অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন উপস্থাপিকা মিথিলা ফারজানা। এতে অতিথি ছিলেন মাসুদা ভাট্টি ও সাখাওয়াত হোসেন সায়ন্ত। আলোচনায় স্টুডিওর বাইরে থেকে যুক্ত হন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।

আলোচনার ফাঁকে মাসুদা ভাট্টির প্রশ্ন ছিল, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি আলোচনা চলছে, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন ঐক্যফ্রন্টে জামায়াতের প্রতিনিধিত্ব করছেন কিনা?

এর জবাবে ব্যারিস্টার মইনুল বলেন, আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনি চরিত্রহীন বলে আমি মনে করতে চাই। এরপর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচনার ঝড় ওঠে।

এ নিয়ে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে গত রোববার ঢাকার মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে একটি মানহানির মামলা করেন মাসুদা ভাট্টি। একই অভিযোগে আরও কয়েকটি মামলা হয় রোব ও সোমবার।

Share Button

error: Content is protected !!