বুধবার, ২৩শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং। ১১ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ। রাত ৪:৩৬








প্রচ্ছদ » বিভিন্ন সংবাদ

দারুন সুখবরঃ বাংলাদেশী কর্মী নিয়োগে জামানত মওকুফ করল আরব অামিরাত!

এখন জীবিকা নির্বাহের ক্ষেত্রে অনেক মানুষ যাচ্ছে প্রবাসে। বাংলাদেশ থেকে প্রায় প্রতি মাসেই কোন না কোন দেশে জীবিকার টানে পৌঁছে যাচ্ছে বাঙালিরা তবে একেক এক দেশে যাওয়ার জন্য থাকে একেক নিয়ম।

এবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রাইভেট কোম্পানিগুলোতে ১৫ অক্টোবর থেকে নতুন কর্মী নিয়োগের ক্ষেত্রে যে জামানতের ব্যবস্থা চালু ছিলো সেটি স্থগিত করা হয়েছে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

এর কারণে কর্মী নিয়োগের আগে যে ৩ হাজার দিরহাম জমা রাখার নিয়ম চালু রেখেছিলো সেটি থেকে অব্যহতি পাচ্ছেন কোম্পানি মালিকরা। তার বদলে সংশ্লিষ্ট কোম্পানিগুলোকে কর্মী বাবদ ৬০ দিরহামের লোকস্ট ইন্সুরেন্স স্কিম এর আওতায় আসতে হবে। পরে দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে খালিজ টাইমস এ খবর জানিয়েছে। আর এতে উপকৃত হবেন প্রায় অর্ধ লক্ষ বাংলাদেশি মালিকানাধীন ছোট বড় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান।

কারণ এর আগে প্রবাসী মালিকানাধীন কোম্পানিগুলোতে কোনো কর্মী নিয়োগ করতে হলে তাদেরকে এই বিপুল পরিমান অর্থ দেশটির সরকারি মন্ত্রণালয়ের কাছে জামানত রেখে কর্মী নিয়োগ দিতে হতো। যেটি একজন মালিকের পক্ষে বেশ কষ্টসাধ্য বিষয় ছিলো। তাছাড়া কর্মীরা সংশ্লিষ্ট কোম্পানি থেকে পালিয়ে গেলে বিপুল পরিমাণ অর্থ বেহাত হয়ে যেতো মালিকদের।

দেশটির সরকার পর্যায়ক্রমে এই খাতে জমা থাকা ১৪ বিলিয়ন দিরহাম ব্যাংক গ্যারান্টির টাকা কোম্পানিগুলোকে হস্তান্তর করবে, যখন তাঁরা ইন্সুরেন্সের আওতায় কর্মচারীদের দেশটিতে নিয়ে যাবেন। তবে, যেসব কোম্পানির কর্মীদের বেতন সংক্রান্ত বিধি লঙ্ঘনের রেকর্ড আছে তারা ব্যাংক গ্যারান্টির টাকা ফেরত পাবেন না।

এই ইন্সুরেন্স স্কিমের আওতায় থাকা কর্মীরা কোম্পানি দেউলিয়া হলে বা কোনো কারণে তাঁদের ন্যায্য পাওনা থেকে বঞ্চিত হলে মাথাপিছু সর্বোচ্চ ২০ হাজার দিরহাম পর্যন্ত গ্র্যাচুয়িটি, ছুটি, ওভারটাইম, বকেয়া বেতন, এয়ার টিকেট বা কর্মক্ষেত্রে সংগঠিত দুর্ঘটনার ক্ষতিপূরণ পাবেন।

Share Button
আরও পড়ুন>>> প্রেম নিবেদনের সেরা বাণী
আরও পড়ুন>>> নারী সম্পর্কিত রোমান্টিক উক্তি
আরও পড়ুন>>> অনুপ্রেরণামূলক ১০০ বাণী

error: Content is protected !!